বিএনপিকে ভোটে আনার প্রয়োজন দেখছে আওয়ামী লীগ

রাজনীতি | 3 months ago | CapitalNews
card image

বিএনপিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আনার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। সে জন্য দলটির নেতারা কূটনীতিক কিংবা রাজনীতিকদের সঙ্গে যেকোনো আনুষ্ঠানিক-অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় সুষ্ঠু ভোটের আশ্বাস দিচ্ছেন। তবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন করার বিরোধী দলের দাবিতে কোনো ছাড় দেবে না ক্ষমতাসীন দলটি।

আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী সূত্র বলছে, দলটি এবারও শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনেই নির্বাচন করার অবস্থানে রয়েছে। সেই নির্বাচনের মাধ্যমে আরেক দফা সরকারে থাকা তাদের লক্ষ্য। সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে ভোট হলে সেই লক্ষ্য অর্জন কিছুটা সহজ হতে পারে। কিন্তু বিএনপিসহ বিরোধীরা ভোট বর্জন করলে তারা নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা করবে। তখন সংঘাত-সহিংসতার আশঙ্কা থাকে। এমন পরিস্থিতিতে অনিশ্চয়তা ও ঝুঁকি বাড়ে। সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে ভোটে জয়ী হয়ে সরকার গঠনে ঝুঁকি কম। এর গ্রহণযোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন উঠবে না।

সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকেরা সরকার, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক-অনানুষ্ঠানিক নানা বৈঠক করছেন। এ ধরনের আলোচনার সঙ্গে যুক্ত আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে প্রথম আলোকে বলেন, বিদেশি কূটনীতিকেরা বিএনপিসহ সব দলের অংশগ্রহণে ভালো একটা নির্বাচনের প্রত্যাশার কথা বলছেন। তাঁরা বিএনপির সঙ্গে সুর মিলিয়ে নিরপেক্ষ বা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিষয়ে চাপ দিচ্ছেন না। ফলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনে নির্বাচনে বিএনপিকে পেতে আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি থাকার কথা নয়। এমন ব্যবস্থায় বিএনপিকে ভোটে আনার বিষয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের উদ্যোগকেও স্বাগত জানানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে আওয়ামী লীগ।